এইচএসসি ভর্তি: জেনে নিন বিস্তারিত

সরকারি-বেসরকারি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা প্রকাশ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রকাশিত নীতিমালা অনুসারে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া  ১২মে থেকে শুরু হয়ে ২৩ মে (যারা পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করবে তাদের ও এই সময়ের মধ্যে আবেদন করতে হবে) পর্যন্ত চলবে। 

আবেদন পদ্ধতিঃঅনলাইন ও এসএমএস এ বেদন করা যাবে।

যারা ভর্তি হতে পারবেঃ২০১৭, ২০১৮ ও ২০১৯ সালের এসএসসি উত্তীর্ণরাও ছাড়াও বাংলাদেশ উন্মুক্তবিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৬, ২০১৭ ও ২০১৮ সালের পরীক্ষার্থীরা একাদশ শ্রেণিতেভর্তি যোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

বিগত কয়েক বছরের মতো এবারও এসএসসির ফলের ভিত্তিতে কলেজেভর্তি করা হবে। গতবারের মত এবারো এসএমএস এর পাশাপাশি অনলাইনেও অা আবেদন করাযাবে তবে এবার ১০টি কলেজে শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন, প্রার্থীরএকইসঙ্গে ১০টি কলেজের মেধাক্রম প্রকাশ করা হবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি প্রক্রিয়ার বিস্তারিত তথ্য।

আবেদনের সময়সীমাঃআবেদন প্রক্রিয়া ১২ মে থেকে শুরু হয়ে ২৩ মে (যারা পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করবে তাদের ও এই সময়ের মধ্যে আবেদন করতে হবে) পর্যন্ত।

আবেদন যাচাই বাছাই ও আপত্তি নিষ্পত্তির সময়সীমাঃ২৪ মে থেকে ২৬ মে পর্যন্ত।

শুধুমাত্র পুনঃনিরীক্ষণের পর ফলাফল পরিবর্তিতদের ক্ষেত্রে আবেদনের সময়সীমাঃ০৩ থেকে ০৪ জুন পর্যন্ত চলবে।

ভর্তির সময়সীমাঃ২৭ জুন থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত।

অনলাইনে আবেদন:অনলাইনে xiclassadmission.gov.bd  ওয়েবসাইট থেকে আবেদন করতে হবে। অনলাইনে ভর্তি আবেদনে পছন্দের ১০টি কলেজকে নির্বাচন করতে পারবে শিক্ষার্থীরা।

আবেদন ফিঃঅনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে ১ টি কলেজে আবেদন করলেও ১৫০/- টাকা চার্জ করবেআবার ১০টি কলেজে আবেদন করলেও ১৫০/- চার্জ করবে। অনলাইনে মাত্র একবারই আবেদনকরা যাবে।

এসএমএসে প্রতি কলেজের জন্য ১২০ টাকা ফি দিতে হবে।এসএমএসে আবেদন:আগের মতো টেলিটক থেকে এসএমএস পাঠিয়েও আবেদনের সুযোগ রাখা হয়েছে। তবে এজন্য প্রতি আবেদনের (প্রতি কলেজের জন্য এক আবেদন) জন্য ১২০ টাকা দিতে হবে।কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সবার জন্যই একই নিয়মে আবেদনকরতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *